Literature review

Introduction

In the first step of starting the research, it is necessary to read the research journal book or literature review done earlier.  The usefulness of reading newspapers and magazines is manifold.  It is possible to get a good idea or knowledge about the work done by the previous researchers in the field of paper book reading, which will help the researcher to determine the scope and direction of his research at present.  Literature reviews can easily identify research gaps. This is a very important step in the selection of research topics. Review creates a theoretical framework for research.  This framework includes various information and theories. In the present study, the data and theories can advise the experimental work to move in the right direction.  In addition, reading magazines and books helps researchers to move their thinking in the right direction.

Steps for literature review

1. Literature selection: 

Literature Reviews help to determine the progress of the research. Researchers concentrate on the subject of their interest. Then gradually picked up the relevant newspapers of their own chosen topics. That is, he created a list of literature from the bulk of literature and paper or many stock newspapers. From this list, the researcher creates a list of priority-based literature in terms of need. And by looking at their table of contents, he concentrates on the lessons he needs.

2. Library help:

The researcher needs to know which libraries in his area are rich in his required books.  You have to go to those libraries to read and collect books.  You have to look at the Page in the hardcopy or everything and write the name of the relevant book, the author, the page number.  This will facilitate the collection of newspapers and magazines.

3. Editing of journal:

Hardcopy and soft copy journals will be required for journal lessons.  Better impact factors represent the better quality of journals, whether they are in national or international publications. The more theories and information will match when  more research ideas will be read,

Necessary directives for literature review

  1. Write or type the main information from the books read and keep the book references.
  2. Write the statements that can be used in your writing as citation (like quote, page number, book name, publisher name, year of publication and name of publication city).
  3. One can easily find the page of the original book at the time of report writing if the site or a reference book written according to page order.
  4. In addition to writing the names of the books reviewed in the literature or writing the necessary documents, it is important to write down the descriptions of the books that have been read so that the overall knowledge gained or the idea is formed, which can help in the preparation of the report.
  5. Bibliography of books or journals from which specific ideas about research are obtained, even if no citations are required.  Which comes in handy at the end of report writing.

Importance of literature review:

  1. Literature review helps to understand the research question.
  2. It sheds light on the knowledge of the student or researcher about the research problem or issues being studied, brings clarity to the researchers’ ideas and helps them to choose the right research problem.
  3. Detailed Literature Review helps to be careful not to repeat the same work.
  4. It helps to understand how the research methodology will use. It gives a clear idea about the methodology that has been applied to the various research activities done earlier and helps to determine what kind of methodology is appropriate.
  5. Literature review makes aware the current researcher about the mistake of the previous researchers.

Join the Community

Join the free community of QGEO where we will be guiding you through the journey of learning geography. We have successfully organized more the 15 online courses. There are more than 2000 students, who actively participate with us. We are providing geography students, scholars, and professionals a better experience in the field of geography.

Notes in Bengali

লিটারেচার রিভিউ বা পূর্ব লিখিত পুস্তকাদি ও পত্র-পত্রিকা পর্যালোচনা

গবেষণা শুরুর প্রথম ধাপেই পূর্বের কৃত গবেষণা পত্রপত্রিকা পুস্তক পাঠ বা লিটারেচার রিভিউ এর প্রয়োজন। পত্র-পত্রিকা পুস্তক পাঠের উপযোগিতা বহুবিধ। পত্র-পত্রিকা পুস্তক পাঠ এর পূর্ববর্তী গবেষকরা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে যে সকল কাজ করেছেন, সে সম্পর্কে সম্যক ধারণা বা জ্ঞান লাভ করা যায় যে জ্ঞান বর্তমানে গবেষককে তার গবেষণার পরিধি নির্ণয় ও পথপ্রদর্শিকা যোগাতে সাহায্য করে। লিটারেচার রিভিউ এর মাধ্যমে  রিসার্চ গ্যাপ বা গবেষণায় বাদ পড়ে যাওয়া বিষয়গুলি সহজে সনাক্ত করা যায়। গবেষণার বিষয়ে নির্বাচনে এটি একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। লিটারেচার রিভিউ গবেষণার একটি থিওরিটিক্যাল ফ্রেমওয়ার্ক বা তাত্ত্বিক কাঠামো তৈরি করে। এই কাঠামোর অন্তর্গত থাকে বিভিন্ন তথ্য ও তত্ত্ব।

বর্তমান গবেষণায় উক্ত তথ্য ও তত্ত্ব পরীক্ষা-নিরীক্ষার কাজ সঠিক পথে অগ্রসর হওয়ার উপদেশ দিতে পারে। এছাড়া গবেষকদের চিন্তা ধারাকে সঠিক দিকে চালিত করতে পত্র-পত্রিকা পুস্তক পাঠ সাহায্য করে।

লিটারেচার রিভিউ এর পর্যায়  সমূহ:

লিটারেচার নির্বাচন:

লিটারেচার রিভিউ রিসার্চ প্রবলেম নির্ণয় সাহায্য করে। গবেষক নিজের আগ্রহের বিষয়াবলী পাঠে মনোনিবেশ করেন। এরপর ক্রমশ নিজের বেছে নেওয়া বিষয়গুলির প্রাসঙ্গিক পত্রপত্রিকা ও পুস্তক গুলিকে বাছাই করেন। অর্থাৎ বহু স্টক পত্র-পত্রিকা থেকে তিনি একটি পত্র-পত্রিকার তালিকা তৈরি করেন। এই তালিকার মধ্যে থেকে প্রয়োজনের নিরিখে অগ্রাধিকার ভিত্তিক পত্র-পত্রিকার তালিকা তৈরি করেন। এবং সেগুলির সূচিপত্র ঘেঁটে নিজের  প্রয়োজনীয় বিষয় গুলি পাঠে মনোনিবেশ করেন।

গ্রন্থাগারের সহায়তা:

গবেষককে জানতে হবে তার অঞ্চলের কোন কোন লাইব্রেরী তার প্রয়োজনীয় পুস্তকে সমৃদ্ধ। সেই লাইব্রেরী গুলিতে যেতে হবে পুস্তক পাঠ ও সংগ্রহের জন্য। হার্ডকপি বা সবকটিতে ক্যাটালগ দেখে প্রাসঙ্গিক পুস্তকের নাম, লেখক এর নাম, ও ক্যাটালগ নাম্বার লিখে নিতে হবে। এতে পত্র-পত্রিকা পুস্তক সংগ্রহে সুবিধা হবে।

জার্নাল পাঠ:

জার্নাল পাঠের জন্য হার্ডকপি  ও সফট কপি জার্নাল উভয়ই প্রয়োজন হবে। ইমপ্যাক্ট ফ্যাক্টর (Impact  factor)  ভালো আছে এমন উন্নত মানের জার্নালগুলি, তা দেশের মধ্যের হোক বা আন্তর্জাতিক প্রকাশনা হোক যত বেশি সংখ্যক পড়া যায় তত গবেষণার ধারণা প্রশস্ত হবে, তত তত্ত্ব ও তথ্যের মিল লক্ষ্য করা যাবে ।

  লিটারেচার রিভিউ এর প্রয়োজনীয় নির্দেশনা:

  1. পাঠ করা বইগুলি থেকে মূল জ্ঞাতব্য বিষয় গুলি লিখে বা টাইপ করে রাখা ও পুস্তকের রেফারেন্স লিখে রাখা।
  2. যে বক্তব্য গুলি নিজের লেখার ব্যবহার করা যেতে পারে সেগুলির উদ্ধৃতি বা সাইটেশন (citation) করার মতো (অর্থাৎ কোট , পৃষ্ঠা নম্বর, পুস্তকের নাম, প্রকাশকের নাম, প্রকাশনার বছর এবং‌ প্রকাশনা শহরের নাম লিখে রাখা) করে লিখে রাখা।
  3. এক একটি বই থেকে সাইটেশন এর জন্য লেখা অনুচ্ছেদ ধরে পৃষ্ঠা ক্রম অনুসারে লিখে রাখলে পরে যেকোনো সময় মূল বইয়ের উক্ত পাতা সহজে খুঁজে পাওয়া যাবে।
  4. লিটারেচার রিভিউ করা বই গুলির নাম ধরে বক্তব্য লেখা বা প্রয়োজনীয় পাঠ  লিখে রাখার পাশাপাশি এতগুলি বই পড়ে যে সামগ্রিক জ্ঞান লাভ বা ধারণা তৈরি হলো তার বর্ণনা গুরুত্বসহকারে লিখে রাখা দরকার, যা রিপোর্ট প্রস্তুতিতে সাহায্য করতে পারে।
  5. সাইটেশন না লাগলেও যে পুস্তক  বা জার্নালটি থেকে গবেষণার বিষয়ে সুনির্দিষ্ট ধারণা পাওয়া গেছে সেগুলির বিবলিওগ্রাফি প্রয়োজন হয়। যা রিপোর্ট রাইটিং এর শেষে কাজে লাগে।

সাহিত্য পর্যালোচনার গুরুত্ব:

  1. অনুসন্ধানী প্রশ্ন বা Research question (অর্থাৎ এ প্রশ্নটির উত্তর অনুসন্ধান গবেষণার উপজীব্য সেই প্রশ্নটি) বুঝতে সাহায্য করে লিটারেচার রিভিউ।
  2. এটি ছাত্র-ছাত্রীদের বা গবেষকের  research problem  বা সমস্যা নিয়ে গবেষণা করা হচ্ছে,  সেই বিষয় সম্পর্কে জ্ঞানের আলোকপাত করে গবেষকদের ধারণা স্বচ্ছতা এনে দেয় এবং সঠিক রিসার্চ প্রবলেমটি বেছে নিতে সাহায্য করে।
  3. বিস্তারিত লিটারেচার রিভিউ এর ফলে একই কাজের পুনরাবৃত্তি যাতে না ঘটে সে বিষয়ে সতর্ক থাকা যায়।
  4. এটি রিসার্চ মেথডলজি কি ব্যবহার করবে তা বুঝতে সাহায্য করে পূর্বের কৃত গবেষণাধর্মী বিভিন্ন কাজকর্মের যে পদ্ধতি বা মেথডোলজি প্রয়োগ করা হয়েছে সেগুলো সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারণা হয় এবং কি ধরনের পদ্ধতি বা মেথডোলজি উপযুক্ত নির্ণয় করতে সাহায্য করে।
  5. এটি পূর্ববর্তী গবেষকদের ভুলটি সম্পর্কে বর্তমান গবেষক কে অবগত কোরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.